1. admin@dailynaogaonnews.com : admin :
শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ০৯:৩৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
ধামইরহাটে কৃষকদের মাঝে কম্বাইন্ড হারভেস্টার ও ভুট্টা মাড়াইয়ের যন্ত্র বিতরণ ধামইরহাটে কেক কেটে শিশুদের জন্মদিন ও উপহার বিতরণ  (রাণীনগর থানা পুলিশের অভিযানে) তিন জুয়াড়ীর কারাদণ্ড; নারীসহ ৯জন গ্রেপ্তার উপজেলা নির্বাচনে: আওয়ামী লীগের প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগ নেতারা হয়রানির প্রতিবাদে ঔষধ ব্যবসায়ীদের সকাল সন্ধ্যা প্রতীকী ধর্মঘট  নওগাঁর মান্দায় স্কুলছাত্রী অপহরনের ৪৫ দিন পেরোলেও উদ্ধার হয় নাই ধামইরহাটে আনারস প্রার্থীর হামলায় কাপ পিরিচ প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী আহত নওগাঁর ফুটবল রেফারি আব্দুস সালাম আর নেই উপজেলা নির্বাচন: আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী বলে ভোট চাওয়ার অভিযোগ চেয়ারম্যান প্রার্থী আজাহারের বিরুদ্ধে  ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী সোহেল রানার বিরুদ্ধে ইউপি চেয়ারম্যানের সংবাদ সম্মেলন

মহাদেবপুরে গ্রাহকের ৫ কোটি টাকা নিয়ে উধাও এনজিওর এমডি

  • প্রকাশিত : সোমবার, ৩১ জুলাই, ২০২৩
  • ১৬৮৮ বার পঠিত

সাদ্দাম হোসেন,মহাদেবপুর প্রতিনিধিঃ নওগাঁ জেলার মহাদেবপুর উপজেলার সোনালী ব্যাংক সংলগ্ন ‘ব্যাতিক্রমী ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী সমবায় সমিতি’ নামের একটি এনজিওর ১৩৯ গ্রাহকের প্রায় পাঁচ কোটি টাকা নিয়ে উধাও হয়েছেন প্রতিষ্ঠানটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি)।

টাকা ফেরত পেতে সোমবার দুপুরে এনজিও কার্যালয়ের সামনে মানববন্ধন করেছেন ভুক্তভোগীরা।

ভুক্তভোগী গ্রাহকরা জানান,২০১৯ সালে মেহেদী হাসানসহ কয়েকজনে মিলে ‘ব্যাতিক্রমী ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী সমবায় সমিতি’ নামে একটি এনজিও প্রতিষ্ঠা করেন। আর্থিক লাভের আশায় ওই এনজিওতে লাখ লাখ টাকা রেখেছিলেন শতাধিক গ্রাহক। ২ মাস আগে হঠাৎ প্রতারণা করে এনজিওর এমডি মেহেদী হাসান ১৩৯ জন গ্রাহকের প্রায় পাঁচ কোটি টাকা নিয়ে উধাও হয়ে যান। এরপর তারা জেলা প্রশাসন ও পুলিশসহ বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত অভিযোগ দিয়েও কোনো প্রতিকার পাননি।

কান্নাজড়িত কণ্ঠে ভুক্তভোগী দেলোয়ারা বেগম বলেন, ‘আমি একজন বিধবা। দুই সন্তান নিয়ে আমার সংসার। আমার ছেলেকে বিভিন্ন লোভ দেখিয়ে তারা ২২ লাখ টাকা নেয়। কিছুদিন লাভ দেয়ার পরে তারা আর টাকা দিতে চায়নি,,আরেকটি গ্রাহক ইলেকট্রিশিয়ান মিস্ত্রি মোঃ মিলন হোসেন জানান বহু কষ্টের উপার্জিত টাকা আমরা জমা করে ওখানে রেখেছিলাম, এই টাকাটা যদি আমার না পাই, আমরা একেবারে নিঃস্ব হয়ে যাবো

এমন আরও অনেক ভুক্তভোগী তাদের পাওনা টাকার দাবিতে মানববন্ধন করে প্রতারণার প্রতিকার চেয়ে জেলা প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

এনজিওটের কর্মচারী বেলাল হোসেন বলেন, ‘আমি যখন তাদের প্রতারণা বুঝতে পারি তখন তারা আমাকে চাকরি থেকে বের করে দেয়। অসহায়-গরীব মানুষের লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়ে চলে গেছে মেহেদী হাসান। আমি নিজেও তাদের বিচার চাই।’

এ বিষয়ে এনজিওর অভিযুক্ত মেহেদী হাসানের সঙ্গে একাধিকবার মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলেও তিনি ফোন রিসিভি করেননি।

এ বিষয়ে মহাদেবপুর থানার ওসি মোজাফফর হোসেন বলেন, ‘বিষয়টি শুনেছি। আমার কাছে আসলে ভুক্তভোগীদের মামালা করার পরামর্শ দিয়েছি।

এ জাতীয় আরও খবর

ফেসবুকে আমরা

© All rights reserved © 2022 Daily Naogaonnews
Theme Customized By Shakil IT Park